নিজস্ব প্রতিবেদক চাঁপাইনবাবগঞ্জ : বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষার মর্যাদা দেওয়ার পাশাপাশি সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রচলন এবং অন্যান্য জাতিসত্তার ভাষা ও বর্ণমালা সংরক্ষণের দাবির মধ্য দিয়ে আরো একবার একুশের প্রথম প্রহরে মহান ভাষা শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে একুশের প্রথম প্রহরে মানুষ ফুল দিতে আসেন নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ শহীদ মিনারে।

মধ্যরাত থেকে মুক্তিযোদ্ধা, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, কৃষি ইনস্টিটিউট, জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, তাঁতিলীগ, মহিলালীগ, যুব মহিলালীগসহ বিভিন্নস্কুল ও প্রতিষ্ঠান শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানান।

বেলা বাড়ার সাথে সাথে ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ফুলে ফুলে ভরে উঠে বাঙালির শোক আর অহংকারের শহীদ মিনার। ভোরের সূর্য উঁকি দেওয়ার আগেই মানুষের ঢল নামে। দল, মত, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে মানুষ ভাষাশহীদদের প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় অমর একুশের কালজয়ী গান- ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ বাজানো হয়।

খালি পায়ে বুকে কালো ব্যাজ ধারণ করে হাতে ফুলের তোড়া নিয়ে একুশের অমর সংগীত ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভুলিতে পারি গানে কণ্ঠ মিলিয়ে শহীদ মিনারের দিকে এগিয়ে যান চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর কৃষক লীগের সভাপতি মেসবাহুল হক টুটুল ও বাংলাদেশ শ্রমিক লীগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডা. শহিদুল ইসলাম রানাসহ দলদুটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। -কপোত নবী।

কমেন্ট করুন