স্টাফ রিপোর্টারঃ ভোলাহাটে কৃষি ফসলের রোগবালাই দমনে মাসব্যাপী ব্যাপক তৎপরতা চলছে বলে দপ্তরের কর্তৃপক্ষ জানায়। সূত্রটি নিশ্চিত করে বলেন, চলতি আমন ধান মৌসমে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপজেলার মোট ১২টি ব্লকে, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা ও উপ-সহকারী কর্মকর্তাগণ রোগবালাই দমনসহ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষকদের মাঝে মাসব্যাপী বিভিন্ন ভাবে সচেতনতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। উপজেলা কৃষি দপ্তরের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী নিরালস ভাবে মাসব্যাপী কৃষকের দ্বারে দ্বারে গিয়ে বিভিন্ন সচেতনতামূল কর্মকান্ড অব্যহত রেখেছে। এর মধ্যে কৃষকের সচেতনতার জন্য উপজেলায় ৬ সদস্য বিশিষ্ট ২টি পৃথক দল গঠন করা হয়েছে। দলগুলো কৃষকদের সাথে উঠান বৈঠক, অবহিতকরণ সভা, লিফলেট বিতরণ, মসজিদে মসজিদে গিয়ে প্রচারণা, কৃষকদের সরসরি প্রশিক্ষণ প্রদান, আলোক ফাঁদের মাধ্যমে পোকা সনাক্তকরণসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানায়।

এ’ছাড়া ধানক্ষেতের মাঠে গিয়ে কৃষকদের ভালো ফলন পেতে রোগবালাই দমনের বিভিন্ন দিক হাতেনাতে পরামর্শ দেয়া হয়। এ ব্যাপারে বিলভাতিয়া ধানক্ষেত মাঠের কৃষক আব্দুল লতিফ বলেন, উপজেলা কৃষি অফিসের কর্মকর্তাগণ সরজমিন মাঠে গিয়ে রোগবালাইসহ ফসলের ভালো উৎপাদনের বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। অপরদিকে উপজেলার পঞ্চানন্দপুর গ্রামের কৃষক সুলতান আলী, বড়গাছী গ্রামের গোলাম সানোয়ার, দলদলী গ্রামের মনিরুল ইসলাম, বালুটুংগি গ্রামের তরিকুল ইসলাম বলেন, উপজেলা কৃষি অফিসের কর্মকর্তা শরিফুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ সরাসরি মাঠে এসে কৃষকদের বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তাদের পরামর্শে এ বছর রোপা আমনের বাম্পার ফলন আশা করা যাচ্ছে। আমরা কৃষকেরা কৃষি অফিসের কর্মকর্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ বলে জানান। এদিকে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম বলেন, ভোলাহাট উপজেলায় রোপা আমন ধানে তেমন পোকার আক্রমণ না থাকায় এ বছর রোপা আমনের বাম্পার ফলন আশা করা যাচ্ছে।

কমেন্ট করুন