1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. nagorikit@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
  3. bholahatchitro@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
আজ মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ভোলাহাটের দলদলী ইউপি’তে আড়াই হাজার মানুষ পেলেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার কানসাট আলোকিত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অসহায় দু্ঃস্থদের মাঝে ইফতার বিতরণ রহনপুরে ৫’শ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা প্রদান ভোলাহাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান আহ্বায়ক কমিটির ইফতার গোমস্তাপুরে বিশ্ব “মা” দিবস পালিত ভোলাহাটে ভারত থেকে আসা দলছুট হনুমানকে দেখতে উৎসুক জনতার ভিড় ভোলাহাটে মা দিবস পালিত ভোলাহাটে বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার না হলে যেখানে সভা সেখানেই লড়াই– যুবলীগের প্রতিবাদ সভায় ভোলাহাটে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ ভোলাহাটে সাড়ে ৮ হাজার মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ
ব্রেকিং নিউজ
সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকুন।

ভোলাহাটে লকডাউনে তৎপর পুলিশ ফাঁকা রাস্তা বন্ধ ছিল দোকান

  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৮৮ বার পড়া হয়েছে
ভোলাহাটে লকডাউনে তৎপর পুলিশ।

স্টাফ রিপোর্টারঃ সর্বাত্মক লকডাউনে ১৪ এপ্রিল বুধবার ভোলাহাট উপজেলায় প্রধান সড়কগুলোতে যান চলাচল ছিলো একদম হাতে গোনা কয়েকটা অটো ও রিক্সা। মোড়ে মোড়ে ছিল পুলিশের ব্যারিকেড। লোকজনকে থামিয়ে জানতে চাওয়া হচ্ছে, কেন তিনি ঘরের বাইরে? উপজেলার প্রধান সড়কের মোড়ে মোড়ে পুলিশের বাড়তি তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। মেডিকেলমোড়,উপজেলা পরিষদ, আম ফাউন্ডেশন, ইমামনগর বাজার, হলিদাগাছী মোড়সহ প্রায় সর্বত্র কড়া নজরদারি ছিলো আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। খুব বেশী প্রয়োজন ছাড়া তেমন কেউ বাইরে বের হতে দেখা যায়নি। তবে প্রয়োজনের তাগিদে কিছু মোটরসাইকে চোখে পড়েছে। পুলিশ তাদের থামিয়ে বের হওয়ার যৌক্তিকতা পরীক্ষা করছে। যারা অপ্রয়োজনে রাস্তায় বের হয়েছেন বা সরকারী নিয়ম না মেনে দোকান খুলেছেন তাদের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। এদিকে সরকারী-বেসরকারী অফিসগুলো বন্ধ থাকতে দেখা গেছে। উপজেলার মেডিকেলমোড়ের বেশ কিছু ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সরকারী আইন মেনে দোকান বন্ধ করে দোকানের আশ-পাশে ঘোরা ফেরা করেছেন। একটু এগিয়ে গিয়ে দোকান বন্ধ করে বাড়ী না যাওয়ার কারণ কি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বললেন, সংসারের আয় ও ব্যয় এ ক্ষুদ্র ব্যবসা থেকে। এখান থেকে চলে সংসারের ৪/৫জন সদস্যের পেট, বিভিন্ন এনজিও সংস্থার কাছে ঋণ নেয়া আছে তাদের শোধ দিতে হয়। যদি ১/২জন কাস্টমার আসে তবে চাল কেনার পয়সাটা পেলেও ক্ষুধা থেকে বাঁচতে পারবো। তাই জীবন বাঁচাতে আর সরকারের আইন মানতে দূরে দাঁড়ীয়ে কাস্টমারদের অপেক্ষা করছি বলে আবেগের সুরে জানালেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। সর্বাত্মক লকডাউনের সামনের দিনগুলো কেমন কাটবে তার ওপরই নির্ভর করছে করোনা সংক্রমণের উর্ধগতি না নিম্নগতিতে নামবে। এদিকে ভোলাহাট থানার অফিসার ইনর্চাজ মাহবুবুর রহমান জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী ভোলাহাট থানা পুলিশ লকডাউন সফল করতে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক তৎপরতা অব্যহত রেখেছে। সরকারের সকল নির্দেশনা পালনে সব সময় প্রস্তুত ভোলাহাট থানা পুলিশ বলে জানান তিনি।

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি (Nagorikit.com)