1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. nagorikit@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
  3. bholahatchitro@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
আজ শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৮:২৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকুন।

প্রতিবেশীর ষড়যন্ত্রে চাকরি হারিয়ে কারাগারে সেনাসদস্য!

  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩৭৩ বার পড়া হয়েছে

মোঃ মেরাজ আলী চাঁপাইনবাবগঞ্জঃপ্রতিবেশীর ষড়যন্ত্রে চাকরি হারিয়ে সেনাবাহিনীর এক সদস্য প্রায় আট মাস থেকে কারাগারে বন্দী রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রবিবার (১০ জানুয়ারি) দুুপুর ১২টায় রাজশাহী প্রেসক্লাবে এক জরুরী সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী সেনা সদস্যের মা সাহার বানু এমন অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় গতকাল রবিবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ডাকযোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দেয়া লিখিত অভিযোগের ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত, ছেলের কারামুক্তি ও চাকরিতে পুনর্বহালের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। ভুক্তভোগী ওই সেনা সদস্যের নাম মো. রুবেল। তার ব্যাচ নম্বর ১২৩৯৬০৪। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার বজরাটেক এলাকার মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে।

সংবাদ সম্মেলনে রুবেলের মা সহার বানু জানান, রহস্যজনকভাবে তার এলাকায় বিউটি নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের পিতা আব্দুল হামিদ বাদি হয়ে ভিকটিমের স্বামী আজমকে পরকীয়া প্রেম ও হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন। যেখানে রহস্যজনক কারণে তার ছেলে সেনা সদস্য রুবলেকেও আসামি করা হয়।
সহার বানু বলেন, ‘আমার ছেলে কোনো অপরাধের সঙ্গেই জড়িত নন। রুবেল বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন। তবুও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলায় আসামি করায় গতবছরের এপ্রিল মাসে সেনাবাহিনীর মার্শাল কোর্টের মাধ্যমে রুবেলকে বরখাস্ত করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়া হয়। তিনি আট মাস থেকে কারাগারে বন্দী রয়েছেন। অথচ একই মামালার প্রধান আসামী আজম এক সপ্তাহের মাথায় জামিনে বেরিয়ে এসেছেন এবং তার প্রেমিকাকে বিয়েও করেছেন। সেখানে আজমের পরকীয়া প্রেমের বিষয়টিও স্পষ্ট হয়েছে।’ সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, স্বামী হারিয়ে সন্তানের চাকরীর ওপর দিয়ে কোনোমতে সংসার চলছিল তার। ছেলের চাকরীচ্যুতি ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে থাকায় অতিকষ্টে দিনাতিপাত ও ছেলের চিন্তায় মৃতপ্রায় অবস্থায় রয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে সন্তানের কারামুক্তি ও চাকরি ফিরিয়ে দেয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট থানার ওসি মাহবুব্রু রহমান জানান, ঘটনার সময় তিনি ওই থানায় দায়িত্বে ছিলেন না। তাই এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি (Nagorikit.com)