1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. nagorikit@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
  3. bholahatchitro@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
আজ সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ভোলাহাটে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে পালিত হলো ৭ মার্চ চাঁপাইনবাবগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায়ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত গোমস্তাপুরে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত নাচোলে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭মার্চ পালিত ভোলাহাটে ফের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু ভোলাহাটে পোনা অবমুক্তকরণ রহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান পদে নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী তোফিজুল মাস্টারের গণসংযোগ অব্যাহত সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত ভোলাহাটের সব স্কুল এখন স্ক্যানার থার্মোমিটার দৃশ্যমান শিবগঞ্জে সাংবাদিক তারেককে লাঞ্ছিত করায় দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার দাবী
ব্রেকিং নিউজ
সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকুন।

জাতীয় শোক দিবসে শিবগঞ্জের কৃতি সন্তান পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামের বাণী

  • আপডেট করা হয়েছে শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০
  • ১০৯ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কৃতি সন্তান ও কুমিল্লা জেলার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম।

এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম তাঁর বাণীতে জাতির পিতাকে হারানোর শোককে শক্তিতে রূপান্তর করে তাঁর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে আত্মনিয়োগ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জাতীয় শোক দিবসে তিনি মহান আল্লাহতায়ালার দরবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বলেন, জাতির পিতার দূরদর্শী, সাহসী এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাঙালি জাতি পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙ্গে ছিনিয়ে এনেছিল স্বাধীনতার রক্তিম সূর্য। বাঙালি পেয়েছে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র, নিজস্ব পতাকা ও জাতীয় সংগীত।

এসপি নুরুল আরও বলেন, সদ্য স্বাধীন যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে বঙ্গবন্ধু যখন সমগ্র জাতিকে নিয়ে সোনার বাংলা গড়ার সংগ্রামে নিয়োজিত, তখনই স্বাধীনতা বিরোধী-যুদ্ধাপরাধী চক্র তাঁকে হত্যা করে। এই হত্যার মধ্য দিয়ে তারা বাঙালির ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও অগ্রযাত্রাকে স্তব্দ করার অপপ্রয়াস চালায়।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে বর্বরভাবে হত্যা করে।

বঙ্গন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, পুত্র ক্যাপ্টেন শেখ কামাল, লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল, দশ বছরের শিশুপুত্র শেখ রাসেল, পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজী জামাল, বঙ্গবন্ধুর সহোদর শেখ নাসের, কৃষকনেতা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, যুবনেতা শেখ ফজলুল হক মণি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মণি, বেবী সেরনিয়াবাত, সুকান্ত বাবু, আরিফ, আব্দুল নঈম খান রিন্টুসহ পরিবারের ১৮ জন সদস্যকেও ঘৃণ্য ঘাতকরা এ দিনে হত্যা করে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সামরিক সচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিলও নিহত হন। ঘাতকদের কামানের গোলার আঘাতে মোহাম্মদপুরে একটি পরিবারের বেশ কয়েকজনও হতাহত হন।- কপোত নবী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

থ্রি ষ্টার গ্রুপের অনলাইন নিউজ পোর্টাল

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি (Nagorikit.com)