1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. nagorikit@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
  3. bholahatchitro@gmail.com : ভোলাহাটচিত্র : ভোলাহাটচিত্র
আজ- বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ব্রেকিং নিউজ
সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া থেকে বিরত থাকুন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাদ আক্কাস আজো মুক্তিযোদ্ধার স্বিকৃতি পায়নি

  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট, ২০২০
  • ৯৪ বার পড়া হয়েছে

 

নাদিম হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
সাদ আক্কাস চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুন্দরপুর থাবানিয়া গ্রামের মৃত সৈয়ব আলী বিশ্বাসের ছেলে। তিনি বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন।সহযোদ্ধা হয়ে সাথে ছিলেন আলাউদ্দিন চেয়ারম্যান, অহাব আলী, মতিন মেম্বারসহ অনেকে। বাঁকিরা গেজেটভুক্ত হয়ে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা সুবিধাদি ভোগ করলেও আজো সরকারিভাবে স্বিকৃতি পাননি মুক্তিযোদ্ধা সাদ আক্কাস। স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী ডাকে সাদ আক্কাস নিজের জীবনের কথা না ভেবে তিনি যুদ্ধের জন্য নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। ভারতে গিয়ে পানিপিয়া ইয়থ ক্লাবসহ বিভিন্ন ট্রেনিং গ্রহণ করেন। যুদ্ধ শেষে ৭নং সেক্টর হয়ে তিনি ফিরে আসেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের স্বিকৃতির জন্য কার্য্ক্রম হাতে নেন। যাচাই বাছাই পূর্ব্ক প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভূক্তি করে তাদের জীবন জীবিকার জন্য ভাতা প্রথা চালু করেন। যাচাই বাছাই তালিকায় সাদ আক্কাস’র সিরিয়াল নং ৭৯ এবং জামুকা নাম্বার ৩৯ তালিকাভুক্তি করা হলেও অজ্ঞাত কারণে আজো তার ভাগ্যে মুক্তিযোদ্ধা স্বিকৃতি মিলেনি। তাকে সরকারিভাবে গেজেটভূক্ত না করায় পরিবার নিয়ে অসহায় মুক্তিযোদ্ধা সাদ আক্কাস অর্ধাহারে অনাহারে বিনা চিকিৎসায় ৮মাস যাবৎ বিছানায় কাতরাচ্ছেন।
মুক্তিযোদ্ধা সাদ আক্কাস জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার আকুল আবেদন স্বাধীনতা যুদ্ধে আমি বঙ্গবন্ধুর একজন যোদ্ধা ছিলাম। আমি বিভিন্ন ট্রেনিং গ্রহণ করেছি। আমাকে গেজেটভূক্ত করা হলে আমি মরেও শান্তি পাব। আমাকে গেজেটভূক্ত করা হউক।
গেজেটভূক্ত মুক্তিযোদ্ধা আজাহার আলী জানান, সাদ আক্কাস যুদ্ধকালীন সময় একজন যোদ্ধা ছিলেন। তিনি বিভিন্ন ট্রেনিং গ্রহণ করেছিলেন। তাকে আমি যুদ্ধে দেখেছি। আজ সে অসহায় তাকে গেজেটভূক্ত করে তার সুচিকিৎসার সুব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি আকুল আবেদন জানিয়েছেন তিনি।
স্থাণীয় ইউপি সদস্য আঃ সালাম জানান, আমি অনেকদিন থেকেই শুনে আসছি সাদ আক্কাস একজন মুক্তিযোদ্ধা। আজ তিনি ৮মাস যাব প্যারালাইসিস রোগে বিছানায় পড়ে আছেন। প্রধানমন্ত্রী ও মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীর কাছে আকুতি তিনাকে গেজেটভূক্ত করে তার চিকিৎসার সুব্যবস্থা করা হউক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

থ্রি ষ্টার গ্রুপের অনলাইন নিউজ পোর্টাল

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি (Nagorikit.com)